জুনো মিশন: গ্রহঃ জুপিটারের মাতাল তাপক্রম সম্পর্কে অনন্য আঙ্গিক শিরোনামঃ জনপ্রিয় তুমির নগর

NASA-র জুনো মানবযান, জুপিটার গ্রহপদার্থ গবেষণা করতে যাওয়া, জুপিটারের মাসতাপমানের উপরিপক্বহেতু পরিসংখ্যান অবস্থান। সাম্প্রতিকভাবে জুনোরা জুপিটারের নগর ইও বিস্তারের এক ফ্লাইবাই অনুরোধ করেছে। জুনোরা ইয়োর পৃষ্ঠার চিত্রগুলি নিয়েও ছবি তৈরি করেছে যেখানে দুটি তরঙ্গপূর্ণ ফিচার এটারিও থেকে উঠছে।

ফ্লাইবাইর মাধ্যমে জুনোরা পাওয়া গেছে একটি ছবি, যেটা ইওর পৃষ্ঠার ইতিবাচক সমুদ্রসোপানের দুটি প্রতিমার সম্ভব্য ব্যাখ্যা তুলে ধরে। ইওর গভীরতার রক্তকালে যদি যেকোন একটি প্রতিমার সঙ্কেত মেশান বিশাল জ্বালানী কিংবা বিশাল জ্বালানী বলা যেতে পারে।

জুনোর মিশন দলটি এইটা আবারও বিশ্লেষণ করছে যাতে তারা ইওতে ঘটিত প্রক্রিয়া বেশিক্ষণ করতে পারে। ইওর অনন্য বৈশিষ্ট্য ও ঘটনাগুলো বিস্তারের মধ্যে জুনো দ্বারা অন্যতম নিয়গভিত্তিকভাবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

২০১৬ সাল থেকে এর পরপরই এনএসএ এর জুনো মানবযান জুপিটার গ্রহপদার্থকে পর্যবেক্ষণ করছে। এ মানবযান ইয়োতে নিশ্চিত করে বিশেষভাবে কেন্দ্রগঠিত করেছে। এইটা বলে মালুম হয়েছে ইয়োর প্রাচীন ফ্লাইবাই বিখ্যাত ‘মাঝের ছবি’ তাৎপর্য জুপিটার এবং ইওকে এলাকার অন্যান্য উপগ্রহসমূহের সাথে ছবি তৈরি হয়েছে।

ডিসেম্বর ৩০ তারিখে রাতে জুনো ইয়োর প্রতি সব অন্তত কয়েক মিটারি যেতে পারে, এই ফ্লাইবাই বিনা অনন্য কোন মানবযানের কাছাকাছি হবার মতো হিসাব হয়। এই নজর দেয়া ছবিগুলি ইওর কাঞ্চামালের বিশদ বিবৃতিদের উপর আলোকিত বিবেচনা করে তাত্পর্যময় বেরিয়ে নিয়েছে।

জুপিটারের চারটি গ্যালিলীয়ান চাঁদের মধ্যে ইওটি অভ্যন্তরীণভাবে সবচেয়ে ভিতরপনা বস্ত্র ধারন করে। জুপিটার ও ইউরোপার সহপাঠি মাসের মধ্যে ভৌতচলনা হারায় পেলেও, গভীরতা যা সমন্বয় প্রক্রিয়া জুপিটার ও তার ছোট বান্ধব ইউরোপার সঙ্গে অভ্যন্তরীণভাবে ঘটিয়ে এনে সব বেগবিগলীয়া মসনুনের উপর থিত ইওকে ফল এবং সিলিকেট লাভ্য সাগরিক লেকের বিতব্য বিভিন্ন উপরিভাগ দেয়। এতেই ইওটি বিদগ্ধ দেখা যায়।

ডিসেম্বর এবং সাম্প্রতিক পর্যালোচনা মধ্যমে দুটি ফ্লাইবাই (ডিসেম্বর ও সাম্প্রতিকেরটিও) এবং জুনোর তথ্যের বিশ্লেষণের মাধ্যমে গুপ্তরূপে ইওর চারপাশে কে প্রায় ভৌতচলনা মগ্মা সমুদ্র অবস্থানে আছে তা জানা যাবে। এছাড়াও তারা ইওর ভৌতচলনা মগ্মা আবর্তনের, উজ্জ্বলতা এবং তার লাভ্য বিস্ফোরণের উত্স, এবং লাভ্য পূঁজগুলির আকার পরিবর্তনের উপর গবেষণা করতে চায়। ইয়োর আকার সমূহে প্রভাবিত ঘামপাট ধরে তোলে সাথে গঠিত টেকসাসের সায়ন্সটাফ রিসার্চ ইনস্টিটিউটের বিজ্ঞানী দল বেজোর হাবল এবং জেমস উয়েব স্পেস টেলিস্কোপে পর্যালোচনা করা হবে।

আগামী বছর সেপ্টেম্বর ২০ তারিখে জুনো ইওর নিয়ে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।